৪৯ তম বিজয় দিবস উদযাপন করলো রিয়াদ মহানগর আওয়ামী যুবলীগ

 প্রকাশ: ২০ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:০৫ পূর্বাহ্ন   |   আন্তর্জাতিক

৪৯ তম বিজয় দিবস উদযাপন করলো রিয়াদ মহানগর আওয়ামী যুবলীগ


গত ১৮ তারিখে রিয়াদ হারা নায়েগ্রা হল রুমে আযোজন করা হয় ৪৯ তম বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা।


উক্ত আলোচনা সভার সভাপতিত্ব  করেন রিয়াদ মহানগর যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শ্রী নন্দলাল সরকার, সঞ্চালনা করেন রিয়াদ মহানগর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক  মোঃ আরকান শরীফ ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজি ওমর ফারুক।  


প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কিং সাউদ ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ন্যানো-বিজ্ঞানী  ড, রিজাউল করিম মিলন,সভাপতি- ফ্রেন্ডস অফ বাংলাদেশ, প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মনোহরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক, মনোহরগঞ্জ  উপজেলা চেয়ারম্যান, ফ্রেন্ডস অফ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাকির হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফ্রেন্ডস অফ বাংলাদেশের সহ-সভাপতি গোলাম মহিউদ্দিন, আবদুর রহমান চৌধুরী, ঈসা উল্লাহ, জাহাঙ্গীর আলম, কাজী ওয়েজ। যুগ্ম সাধারন সম্পাদক, সংবাদিক আবুল বসির, মেহেদী হাচান মুরাদ,নাজিবুল মুবারক, সাহিদ মাদবর। সাংগঠনিক সম্পাদক মুক্তাদির চৌধুরী, সহিদ মুন্সী সহ ফ্রেন্ডস অফ বাংলাদেশের আরো অনেক নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন।


রিয়াদ মহানগর যুবলীগ থেকে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি ওবাইদুল হক , কাজি সাহিন , যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, জুনায়েত মাদবর, সাংগঠনিক সম্পাদক, তারেখ বাবুল, আবদুল মান্নান, মোসলে উদ্দিন মানিক,দপ্তর সম্পাদক, গোলাম সামদানী, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক, সোয়েব সুমন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ওবায়দুল খান, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মহিউদ্দিন মোল্লা


রিয়াদ মহানগর  জাতীয় শ্রমিক লীগ থেকে উপস্থিত ছিলেন উক্ত  সংগঠনের সভাপতি কাজী কামাল, সিনিয়র সহ-সভাপতি আবুল কালাম মুন্সি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক


রিয়াদ মহানগর যুবলীগ শাখা কমিটি থেকে উপস্থিত ছিলেন হারা শাখা সভাপতি মোঃ রুমন সাধারন সম্পাদক আবু রাইহান সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম। নাসিম শাখা সভাপতি রফিকুল মাদবর

সহ আরো অনেক নেত্রী বৃন্দ।

উক্ত অনুস্টানে সকল নেত্রী বৃন্দ বলেন বিজয় দিবস বাংলাদেশে বিশেষ দিন হিসেবে রাষ্ট্রীয়ভাবে দেশ বিদেশে সর্বত্র পালন করা হয়। প্রতি বছর ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ এবং প্রবাসে দিনটি বিশেষভাবে পালিত হয়। ১৯৭২ সালের ২২ জানুয়ারি প্রকাশিত এক প্রজ্ঞাপনে এই দিনটিকে বাংলাদেশে জাতীয় দিবস হিসেবে উদযাপন করা হয় এবং সরকারীভাবে এ দিনটিতে ছুটি ঘোষণা করা হয়। ৯ মাস যুদ্ধের পর ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পাকিস্তানী বাহিনীর প্রায় ৯১,৬৩৪ সদস্য বাংলাদেশ ও ভারতের সমন্বয়ে গঠিত যৌথবাহিনীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করে। এর ফলে পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ নামে একটি নতুন স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্রের অভ্যুদয় ঘটে। ভারতেও এই দিনটি বিজয় দিবস হিসেবে পালিত হয়ে থাকে।

আন্তর্জাতিক এর আরও খবর: